চ‍্যাটার্জী অমলের কবিতা

চ‍্যাটার্জী অমলের কবিতা

হারানো দিনের গান

আজকাল তোমায় নিয়ে আর তেমন ভাবিনা,
জীবনের পশরা নিয়ে পথে বসে ভাবতে ভাবতেই যখন
তারুণ্য রঙের দিনগুলো বৃদ্ধ হয়ে গেল…
আমি বুঝিনা তখন শিরোনামে নটবর অস্তিত্বের
একই গল্প রেখে ছিঁড়ে খাওয়ার কী দরকার ?

বেশ তো বেদনার ঢেউয়ে অবিরল দুলতে দুলতে
উপভোগ করি অজস্র বেদনার জ্বালা, কত সহজেই কাঁধ
ঝাঁকিয়ে সীমাহীনের ওপর বলিষ্ঠ আবৃত্তিতে অজুহাতের
অলৌকিক ভাস্কর্য র্এঁকে ভাবলেশহীন চলে গেলে।
চলে গেলে অথচ জানতেও পারলে না…
আকাশের সাথে সঙ্গমরত ঘুড়ির মতো…
এখনো প্রেমের দিনগুলো লাভবার্ড হয়ে রাত্রির বুকে
জেগে উঠে স্মৃতির নিভৃতে।

মাঝে মাঝেই আমি ফিরে ফিরে যাই ভরা বসন্তের মরা
দিনগুলোয়, বাসন্তী স্নানে ঝরা পলাশের লাল পাপড়ির
গালিচায় বড়ো আপন করে নেওয়া স্মৃতিগুলো আনাবিল
শান্তির স্বরে কেবল আমায় ডাকে। জানিনা লাল রঙ
এখনো তোমার পছন্দের কিনা ? উদাসীন পাখি হয়ে
উদভ্রান্তের মতো সমস্ত দুঃখের মাঝে সমস্ত বিষণ্ণতার
মাঝে এখনো খুঁজে বেড়াই হারানো দিনের গান ।।

ভালোবাসার সুখ

এখনো হৃদয়ে লেগে আছে ভালোবাসার সুখ
এখনো স্বপ্নের দেশ কব্জা করে ভালোবাসার ছবি।
কতো বিচ্যুত কথা, কতো রসিকতা, মুখের কতো
এঁটো কথার বলিদান তাতে লেখা।

প্রসন্নতার চারিদিকে প্রাচীন ভৈরবীর আত্মভোলা অনুভব…
তৃষ্ণা মেটানো অপার স্নিগ্ধতায় উচ্ছ্বাসের নদী
একটানা বয়ে যায় পাতালঘরে…

নির্জন মন ভালোবাসা খোঁজে স্মৃতির শেকড় আঁকড়ে,
আলো আঁধারি অনুভবে অনুসরণ করে যাবৎ ভালোবাসারা
যেখানে থাকে আস্বাদ পেতে তাদের জীবন।

যদিও অতীত হওয়া সাদা কালো ছবির মতো আমিও
অতীত হতে চলেছি নিশ্চুপ জ্বালিয়ে নিজেকে…
ভালোবাসি এখনো তোমাকে হে প্রিয় নারী,‌
তাই এখনো হৃদয়ে লেগে আছে ভালোবাসার সুখ।।

রঙশূণ‍্য ফাগুন

ফাগুনের শেষ গোধূলির অস্তগামী সূর্য
ধীরগতিতে নামছে দিগন্তে। আগুনঝরা রূপ রঙ শূন্য করে
চৈত্রের দাবদাহ কত সহজেই ফাগুনকে করছে বিবর্ণ।
বিরহের তীব্র যন্ত্রণা রেখে গেল বুকের বাম দিকে
ধূসর রঙের মেঘ।

সৌন্দর্য হারিয়ে উর্বশী ফাগুন ক্ষেত…
অক্ষরহীন অভিমানে মুখ লুকালো সন্ধ্যার কালো জলে।
বিদায়ের উঠুন জুড়ে আনমনে পুড়তে থাকে কালের
দীর্ঘশ্বাস। নিঃস্বতার প্রাচীর ঘিরে খসে পড়া ফুলেরা যেন
রতিকান্ত বিষাদ।

সংক্রান্তির সন্ধ্যায় জ্যামিতিক রেখার ওপ্রান্তে
বিষাদের ঘরময় ওড়ে রাখালিয়া বাঁশির সুর,
রাতের প্রদেশ জুড়ে নিষিদ্ধ গোপনে স্মৃতির দহন ভাসে
বাউলের একতারায়। তবুও ফাগুন আসবে আরেকটি
ফাগুনের প্রত্যাশায়, সুরের একবুক জোছনায় নানা রঙে
নানা আয়োজনে ঘরে তুলবে বসন্ত সাজানো
আগামী বসন্তের ফাগুন।