হরিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কবিতা

হরিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কবিতা

মরে যাওয়ার পরেও

মরে যাওয়ার পরেও
অনেকদিন কথা বলে
ঘুমের মধ্যে, পথ চলতে চলতে,
লিখতে লিখতে
এমনকি কথা বলতে বলতেও

যতদিন আমরা বলতে দিই
ঘুরে ঘুরে আসে মুখ

যতদিন কথা বলে
ততদিন আমরা ভেতর থেকে বদলে বদলে যাই ।

শেষ দৃশ্যে

সারাটা দিন নেচে নেচে
যখন বিকেলে এসে ক্লান্ত হই
দেখি ধুলোর ওপর
ভাঙা ভাঙা পায়ের ছাপ

চার পয়সার নাচের মাস্টার আমি
শেখাতে শেখাতে
ধুলোতে রাখি নি নিজের পা
এখন শেষ দৃশ্যে
ভাঙা পা
বৃষ্টিজলে
আরও হাজার ভাঙনে ভেঙে
নদীতে মিশে যাচ্ছে ।

তোমার কাছে

কতবার ভেবেছি
হাঁটতে হাঁটতে তোমার কাছে চলে যাব
কিন্তু
কত কত জানলা দরজা
সাদা পাতায় ধুলোর রাস্তার ওপর
রঙের বাটি উল্টে যায়
তুলি কাদায় মাঠ আঁকি না আর
সিঁড়ি ছেড়ে পায়ে পায়ে বলি —
আজ নতুন কিছু লিখলে ?